প্রযুক্তি বাংলা

থাকবো না ক বদ্ধ ঘরে

প্রযুক্তি

Type-69 IIG মেইন ব্যাটেল ট্যাংক

Type-69 IIG মেইন ব্যাটেল ট্যাংক
.
.
বাংলাদেশ সেনাবাহিনী তে অন্যতম ব্যবহৃত মেইন ব্যাটেল ট্যাংক হচ্ছে Type-69 IIG । বাংলাদেশের কাছে এরকম ১০০টির বেশি Type-69 IIG মেইন ব্যাটেল ট্যাংক রয়েছে ।
Type-69 IIG ট্যাংক ৭০ এর দশকে চীন Type-59 ও Type-62 এর আপগ্রেড ভার্সন হিসেবে তৈরি করে ।
ইরাক যুদ্ধে অবশ্য এই ট্যাংকগুলো খুব বেশি ভালো কার্যকারিতা দেখাতে পারেনি । এর পেছনে কারন ছিল ইরাকী সেনারা একে তো ভীতু ছিল আরেক তো এই ট্যাংকের আর্মার খুব সুবিধার ছিল না ।

সর্বশেষ আপডেট

৯০ এর দশকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর জন্য Type-69 IIG মেইন ব্যাটেল ট্যাংক কেনা হয় ।
পরবর্তীতে আমেরিকার হাতে আটক হওয়া বেশকিছু Type-69 IIG ট্যাংক বাংলাদেশ কে দিয়ে দেয়া হয় ।
যার ফলে বাংলাদেশের এই ট্যাংকের সংখ্যা ১০০+ রয়েছে ।

২০১০-২০১৩ সালে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী নিজেরাই Type-69 IIG মেইন ব্যাটেল ট্যাংকগুলো এক নতুন জীবন দেন অত্যাধিক আপগ্রেডের ফলে ।
এটা একটা প্রশংসা পাওয়ার কাজ করেছে ।

ছবিতে সম্ভবত বিডিআর বিদ্রোহের সময়ে ঢাকার কোন এক রাস্তা দিয়ে যাওয়া    Type-69 IIG মেইন ব্যাটেল ট্যাংকের দৃশ্য  !
ছবিতে সম্ভবত বিডিআর বিদ্রোহের সময়ে ঢাকার কোন এক রাস্তা দিয়ে যাওয়া Type-69 IIG মেইন ব্যাটেল ট্যাংকের দৃশ্য !


যেখানে আগে Type-69 IIG মেইন ব্যাটেল ট্যাংকের ৫৫০ হর্সপাওয়ারের ইঞ্জিন ব্যবহার হতো সেখানে আপগ্রেডের ফলে এর ইঞ্জিন এখন ৮৫০ হর্সপাওয়ারের !!
.
.
এছাড়া বাংলাদেশ সেনাবাহিনী Type-69 IIG ট্যাংকগুলোর পুরানো আর্মার পরিবর্তন করে নতুন আর্মার লাগিয়েছে যা এর স্থায়ীত্ব কে আরো দীর্ঘ করবে । এর চারপাশে এমন আর্মার আছে যা সাধারনত কোন রকেট লঞ্চার বা অ্যান্টি ট্যাংক রকেট দ্বারা কোন ক্ষতি করা যাবে না ।
.
.
এছাড়া Type-69 IIG ট্যাংকগুলো তে বাংলাদেশ নতুন সব প্রযুক্তি যোগ করেছে যেমন এতে রয়েছে আধুনিক ফায়ার কন্ট্রোল সিস্টেম , আধুনিক যোগাযোগ ব্যবস্থা , থার্মাল ইমেজিং সিস্টেম যা একে রাতেও কার্যকর করে তুলেছে । এছাড়াও ব্যালিস্টিক কম্পিউটার , গানার সাইট , উন্নত ডাটা লিংক , লেজার রেঞ্জফাইন্ডার , এক্সপ্লোসিভ রিঅ্যাক্টিভ আর্মার রয়েছে যা একে আর্টিলারি শেল কিংবা অ্যান্টি ট্যাংক মিসাইলের হাত থেকে বাচাঁয় ।
.
.
এছাড়া বাংলাদেশের আপগ্রেডের ফলে Type-69 IIG মেইন ব্যাটেল ট্যাংকে ১০০ মিলিমিটার মেইনগানের পরিবর্তে ১০৫ মিলিমিটার মেইন গান যুক্ত করা হয়েছে যা দ্বারা ৩ কিঃমিঃ পর্যন্ত গোলাবর্ষন করা যাবে ।
.
এছাড়া এতে সেকেন্ডারি অস্ত্র হিসেবে ১টি কক্সিল 7.62mm লাইট মেশিনগান ও ১ টি 12.7mm ভারী মেশিনগান বহন করে ।
এছাড়া শত্রু ট্যাংক কে ধোকা দিতে এতে রয়েছে স্মোক গ্রেনেড।


তো এই ছিল বাংলাদেশ সেনাবাহিনী তে অন্যতম ব্যবহৃত Type-69IIG ট্যাংকের বিস্তারিত । এখানে এই ট্যাংক কে খুব বেশি ভালো ট্যাংক বলা যাবে না ।
তবে এটি মোটামুটি ভালো ট্যাংকে রূপান্তর করেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী । যার ফলে এই ট্যাংকগুলো যুদ্ধে অধিক কার্যকর হবে ।
.
.
একনজরে Type-69 IIG ট্যাংকের বিস্তারিত :-
.

টাইপ :- মেইন ব্যাটেল ট্যাংক

ক্রু :- ৪ জন

.

ওজন :- ৩৬.৭ টন

দৈর্ঘ্য :- ৬.২৪ মিটার

চওড়া :- ৩.৩ মিটার

উচ্চতা :- ২.৮০ মিটার

গতি :- প্রতি ঘন্টায় ৫০ কিঃমিঃ

রেঞ্জ :- ৫০০ কিঃমিঃ

উৎপত্তি_স্থল :- চীন

সার্ভিস :- ১৯৮২ সালে

লেখক@ফারহান জোবান

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *